You are here
Home > Don't Miss > রান্নাবান্না ও রূপচর্চা > রান্নাকে সুস্বাদু করার ট্রিক্স: রান্না শেখা, রান্না করা (জরুরী টিপস)

রান্নাকে সুস্বাদু করার ট্রিক্স: রান্না শেখা, রান্না করা (জরুরী টিপস)

রান্নাকে সুস্বাদু করার ট্রিক্স

রান্না একটি আর্ট। শিল্পীর নিখুঁত রঙীন তুলিতে যেমন শিল্পকলা রূপ পায়। ঠিক তেমনি রাঁধুনীর নিপুণ দক্ষতায় রান্না হয়ে ওঠে লাজবাব ও সুস্বাদু। রান্না শেখা, রান্না করা এটা নিয়ে অনেকেরই প্রশ্ন ঠিক কেমনভাবে রান্না করলে রান্না হয়ে উঠবে সুস্বাদু? এবং কৌতূহল! রান্নাকে সুস্বাদু করার ট্রিক্স নিয়ে।

আগেকার দিনে মেয়েরা শুধু গৃহে রান্না ও ঘর সংসারের কাজকর্ম নিয়ে থাকতো। কিন্তু বর্তমানে আধুনিকতার আঙ্গিকে পৌঁছে মেয়েরা নিজেদের যুক্ত করছে বিভিন্ন পেশায় চাকুরীতে। ফলে সময় অনেকটাই কম। তবুও এই ব্যাস্ততার মাঝে অল্প সময়ে চটপট রান্না শেখা, রান্না করার চেষ্টা করে। এবং সময় পেলেই তারা রান্না ঘরে ঢুকে পড়ে বিভিন্ন আধুনিক রান্নার রেসিপি করতে ও রান্নাকে সুস্বাদু করার ট্রিক্স এক্সপেরিমেন্ট করতে।

দৈনিক ব্যস্ততায় বা অন্যমনস্কতায় অনেক সময় রান্না তে লবণ বেশি হয়ে যায় কখনো পুড়ে যায় কখনো ঝাল বেশি হয়ে যায় কখনো গলে যায়। আবার কখনো মশলা ঠিক না কষা কিংবা বেশি কষার জন্য তেতো হয়ে যায় ফলে স্বাদহীন রান্না হয়ে ওঠে। বিশেষ করে বাড়িতে অতিথি আসলে অনেক রেসিপি তো রান্না করা হয় সেই সাথে অনেক কাজ ও থাকে। তাই টেনশনের কিছু নেই রান্নাকে সুস্বাদু করার ট্রিকস ব্যবহার করে স্বাদহীন রান্নাকে ও চটজলদি মজাদার স্বাদযুক্ত করা যায়।

রান্নাকে সুস্বাদু করার ট্রিকস অনেক আছে তারই মধ্যে উল্লেখযোগ্য রান্নাকে সুস্বাদু করার সাতটি ম্যাজিক ট্রিক্স আজকের আলোচ্য বিষয় ও সেই সাথে জেনে নিন স্বাদ নষ্ট হয়ে যাওয়া রান্নাকে চটজলদি মজাদার স্বাদযুক্ত করার উপায় এবং ভালো রান্না শেখা, রান্না করার জন্য বেশ কিছু জরুরী টিপস।

রান্নাকে সুস্বাদু করার সাতটি ম্যাজিক ট্রিক্স:

১. বেশী মাত্রায় লবণ হলে:

তরকারি বা ডালে বেশী লবণ হলে তা টেষ্টলেস লাগে তাই সিদ্ধ করা আলু একটু দিয়ে দিন বা একটু ময়দা মেখে গোল গোল করে দিন অথবা একটু দুধ দিয়ে দিন লবণতো কমবেই রান্নার স্বাদ ও বাড়বে।

২. মাংসের ঝোল অনেকটাই পাতলা হয়ে গেলে:

চিকেন কিংবা মটন মাংস মানেই একটু কষা না হলে ঠিক জমে না তবে অনেকেই মাংসের একটু ঝোল পছন্দ করেন। কিন্তু মাংসের ঝোল যদি বেশী পাতলা হয়ে যায় তা স্বাদহীন লাগে। আবার কখনো ঠিক মশলা না কষা কিংবা বেশি কষার জন্য তেতো ও হয়ে যায়। তাই ঐ মূহুর্তে কয়েকটি পেঁয়াজ কুচিয়ে নিয়ে ভেজে বেরেস্তা করে নিন পারলে অল্প গোটা গরম মশলা দিন পেঁয়াজ ভাজার সময় এবং এই বেরেস্তা স্বাদহীন পাতলা মাংসের ঝোলে দিয়ে একটু ঢেকে রাখুন ১৫ মিনিট পর একটু নেড়ে নামিয়ে নিন, উপরে একটু চাটমশলা দিন। আর দেখুন মাংসের স্বাদ কেমন দূর্দান্ত হয়ে ওঠে।

৩. রোষ্ট বা কাবাব জাতীয় খাবার পুড়ে গিয়েছে বা লবণ হয়ে গিয়েছে?

রোষ্ট বা কাবাব জাতীয় খাবার পুড়ে গেলে বা লবণ বেশি হয়ে গেলে একটি পাত্রে কিছুটা টকদই, অল্প একটু লবণ ও চিনি দিয়ে এবং চাটমশলা, পুদিনা পাতা বাটা, ধনেপাতা বাটা ও সর্ষে তেল দিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে রায়তা বানিয়ে কাবাবের উপরে দিয়ে পরিবেশন করুন।

৪. যে কোনো তেলেভাজা বা আলুরচপ কিংবা যে কোনও ধরনের স্ন্যাকস ঘরেই তৈরী করেছেন কিন্ত তা বিস্বাদ হয়েছে? নো টেনশন:

আপনার বানানো পছন্দের তেলেভাজার উপর একটু চাটমশলা ছড়িয়ে দিন এবং কিছুটা টমেটো সস, চিলি সস অল্প একটু গোলমরিচ গুঁড়ো ও লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে একটা সস বানিয়ে পরিবেশন করুন দেখুন কেমন মজাদার লাগে।

৫. বিরিয়ানি, ফ্রায়েড রাইস বা পোলাও ঝরঝরে হয়নি গলে গিয়েছে? অল্প সময়েই ঝরঝরে করুন:

বড়ো ছড়ানো পাত্রে ঢেলে কিছুক্ষণ হাওয়াতে রাখুন। ঠান্ডা হয়ে যাওয়ার পর ছড়ানো পাত্রে বা কড়াইতে একটু গরম করে নিন দেখুন বিরিয়ানি, ফ্রায়েড রাইস বা পোলাও ঝরঝরে হয়ে গেছে।

৬. তরকারিতে ঝাল বেশি হয়ে গেলে:

যে কোনও তরকারি সে মাছের ঝোল বা মাংসের ঝোল হোক অতিরিক্ত ঝাল হয়ে গেলে একটু দুধ ও সামান্য চিনি দিয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে রাখুন এরপর নামিয়ে পরিবেশন করুন।

৭. মাছের ঝোলে আঁশটে গন্ধ লাগছে? মুখে তোলাই যাচ্ছে না?

কয়েকটি টমেটো কুচিয়ে ঝোলে দিন এবং বেশ কিছুটা ধনেপাতা কুচি ও ভাজা জিড়ের গুঁড়ো উপরে ছড়িয়ে অল্প আঁচে ১০ মিনিট ঢাকা দিয়ে রাখুন তারপর পরিবেশন করুন। দেখুন ম্যাজিকের কাজ করবে নিমেষেই ভ্যানিশ হয়ে যাবে আঁশটে গন্ধ এবং মাছের ঝোল হয়ে উঠবে দারুণ টেষ্টি।

এবার জেনে নিন রান্না শেখা, রান্না করার জন্য বেশ কিছু জরুরী টিপস:

আজকাল মেয়েরা শুধু না অনেক ছেলে ও রান্না করাতে ইন্টারেস্টেড। সমস্ত ব্যস্ততার মাঝেও বিভিন্ন রেসিপি করতে ঢুকে যায় রান্না ঘরে। তাই উভয়ের জন্যই চটপট রান্না শেখা, রান্না করার বেশ কিছু জরুরী টিপস আলোচিত হলো –

১. চাল ধুয়ে ১০ মিনিট রেখে তারপর ভাত করতে হবে এবং ফোটার সময় ১ চা চামচ সর্ষে তেল দিন। তাতে ভাত ঝরঝরে হবে।

২. সব্জির রং সবুজ রাখতে তেলের উপরএক চিমটি চিনি দিন

৩. তরকারি ঘন করতে একটু কর্নফ্লাওয়ার গুলে দিন।

৪. তরকারিতে গরম জল ব্যবহার করুন

৫. মাংসের তরকারি করার সময় কাঁচা পেপের টুকরো দিন তাড়াতাড়ি সিদ্ধ হয়ে যাবে।

৬. বেরেস্তা করার সময় অল্প জলের ছিটা দিন তাড়াতাড়ি লালচে হবে।

৭. ডাল রাতে ভিজিয়ে রেখে পরের দিন রান্না করুন তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে। এবং ডাল বাগার দেওয়ার সময় রসুন আর তেল একটু ভেজে উপরে দিয়ে দিন এতে সময় বাঁচবে।

৮. স্যুপ বেশি পাতলা হলে একটু সিদ্ধ আলু ম্যাশ করে মিশিয়ে নিন।

৯. ডিম সিদ্ধ করার সময় সামান্য লবণ দিন তাতে পরে ঠান্ডা হয়ে গেলে খোসা ছড়ানোর সময় খোসাতে একটুও ডিম নষ্ট হবে না।

১০. কোনো কিছু ভাজতে গিয়ে তেল বেশি পড়ে গেলে ভাজাটুকু কড়াইয়ের একদিকে সরিয়ে কড়াইটা একটু কাত করে রাখতে হবে ভাজা থেকে সব তেল ঝরে গেলে তুলে অন্য পাত্রে রাখতে হবে।

১১. মাছ রান্না হয়ে গেলে উপরে ধনেপাতা কুচিয়ে দিন তরকারির স্বাদ সুন্দর লাগবে।

১২. যতটা সম্ভব পাতলা ঢাকা দিন রান্নার সময়।

১৩. মুরগির মাংস বা গিলা মেটে রান্নার সময় ১ চা চামচ সিরকা দিলে মাংসের গন্ধ দূর হবে।

১৪. রেজালা বা দোপেঁয়াজা জাতীয় রান্নাতে লবণ বেশি হলে একটা পাত্রে টকদই ও চিনি একসাথে মিশিয়ে সেটা দিন ফলে লবণ কমবে এবং স্বাদ হবে অনন্য।

১৫. রাতেই ঠিক করে রাখুন আগামীদিন কি রান্না হবে এবং মশলার কৌটার গায়ে নাম লিখে রাখুন ফলে অনেকটাই সময় বাঁচবে।

আরও পড়ুন – ডালগোনা কফি বানানোর পদ্ধতি

এভাবেই সময় বাঁচিয়ে খুব অল্প সময়ে সুস্বাদু রান্না শিখে, রান্না করে আপনারা নিজেদের প্রিয় মানুষ ও পরিবারের সবার মন ভরিয়ে তুলুন। এবং রান্নাকে সুস্বাদু করার ট্রিকস ব্যবহার করে নিত্যনতুন রেসিপি পরিবেশন করে হয়ে উঠুন অতি প্রিয়।

এরকমই গৃহস্থালীর খুঁটিনাটি, রান্নার বিভিন্ন টিপস ও বিভিন্ন রান্নার রেসিপি জানতে আমাদের সাথে থাকুন।

Leave a Reply

Top