You are here
Home > Don't Miss > শরীর ও স্বাস্থ্য > তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়: এই পদ্ধতি অনুসরনে মাত্র ১ মিনিটে আসবে ঘুম

তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়: এই পদ্ধতি অনুসরনে মাত্র ১ মিনিটে আসবে ঘুম

তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়

আজ আমরা এমন একটি সমস্যার বিষয়ে বলব যা আমাদের আসে-পাশে এবং সমাজে বসবাসকারী অনেক মানুষের কাছে গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা হয়ে উঠেছে। আর তা হল রাতে ঘুম না আসা। আজ এই পোস্টের মাধ্যমে আমরা দেখব কিভাবে এই সমস্যা নির্মূল করা যায়। সুতরাং আমরা আজ কথা বলব রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায় গুলির সম্পর্কে।
তার আগে আমরা জেনে নেব কী কী কারণে আমাদের রাতে ঘুম আসে না। কারনগুলো হল–

  • রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে নিকোটিন বা চা, কফি জাতীয় কিছু পান করার কারণে।
  • সারাদিন পর ঘুমাতে যাওয়ার আগে নিজেকে রিল্যাক্স না করে বা অসম্পূর্ণ কোনো কাজ সম্পূর্ণ না করে ঘুমাতে যাওয়ার কারণে।
  • ঘুমাতে গিয়ে বিছানায় শুয়ে শুয়ে ফোন ঘাঁটা ইত্যাদি কারণে।

আপনি যদি তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায় -এর সন্ধান করে থাকেন তাহলে আপনাকে সর্বপ্রথম এই উপরিউক্ত কারণগুলো থেকে দূরে থাকতে হবে।

আর বেশি কথা না বাড়িয়ে এবারে আমরা সেই সমস্ত উপায়গুলি নিয়ে আলোচনা করব যেগুলির দ্বারা আমরা রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমাতে পারি। উপায়গুলি নিম্নলিখিত –

  • ঠান্ডা জায়গায় ঘুমানো।
  • ঘুমানোর আগে হালকা গরম জলে স্নান করে নেওয়া।
  • সারাদিনের মধ্যে ১৫ মিনিট হালকা এক্সারসাইজ করা।
  • ঘুমাতে যাওয়ার সময় সমস্ত কাজ সেরে ফেলা এবং নিজেকে রিল্যাক্স রাখা।
  • সারাদিনে অনন্ত ৩০ মিনিট সূর্যালোকে থাকা।
  • ৪৭৮ ট্রিক ফলো করা।
  • ঘুম আসতে সাহায্য করে এমন কিছু খাবার খাওয়া।

তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়:

১) ঠান্ডা যায়গায় ঘুমানো:

তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়গুলির মধ্যে এটি একটি অন্যতম উপায়। রাতে ঘুমানোর সময় যদি পর্যাপ্ত পরিমাণ বাতাস ঘরে প্রবেশ না করে তবে সেই ঘর ঘুমানোর পক্ষে তেমন উপযুক্ত নয়। স্বাভাবিক ভাবেই ঘুমানোর সময় যদি ঘর গরম থাকে বিশেষত বালিশ এবং বিছানা তাহলে অসুবিধা হয়। শুনলে অবাক হবেন কিন্তু এই কথা সত্যি যে ঘুমানোর আদর্শ তাপমাত্রা হল ১৮°সে যা আমাদের দেশে এয়ার কন্ডিশনার ছাড়া গ্রীষ্মকালে অসম্ভব। তবে যাদের বাড়িতে এয়ার কন্ডিশনার নেই তারা চেষ্টা করবেন জানালা দরজা খুলে রাখার যাতে পর্যাপ্ত পরিমাণে বাতাস ঘরের ভিতর প্রবেশ করতে পারে। স্বাভাবিক ভাবেই ঘুমানোর কারণে মানব দেহের তাপমাত্রা ১.৫°সে হ্রাস পায়। এই কারণে গ্রীষ্মকালের তুলনায় শীতকালে ঘুম ভাল এবং তাড়াতাড়ি হয়।

২) ঘুমানোর আগে হালকা গরম জলে স্নান করে নেওয়া:

এই উপায় শুনতে খানিকটা অদ্ভুত হলেও এই উপায়টি বেশ কার্যকরী। ঠান্ডা জল দিয়ে গা ধুলে শরীর ঠান্ডা হয় কিন্তু সেটি ক্ষণস্থায়ী। কিন্তু হালকা গরম জলে গা ধুয়ে ফেললে শরীরের ঠান্ডা ভাবটি দীর্ঘস্থায়ী হয়।

৩) সারাদিনে ১৫মিনিট হালকা এক্সারসাইজ:

দিনের শুরুতে হালকা এক্সারসাইজ যেমন একটি মানুষকে চনমনে ও এনার্জেটিক করে তোলে তেমনি রাতে ঘুমানোর সময় ঘুম টিও দারুণ করে। তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়গুলির মধ্যে এটি একটি দারুণ উপায়, দিনের শুরুতে ১৫মিনিট এক্সারসাইজও গভীর একটি ঘুমে সাহায্য করে। চেষ্টা করবেন দুপুরের ঘুমটা এড়িয়ে যাওয়ার। আর যদি তাও দুপুর বেলা ঘুমাতে হয় তাহলে তা দুপুর ৩টের আগে সেরে ফেলার। কখনই দুপুর ৩টের পর ঘুমাবেন না। কারণ দুপুর ৩টের পরের ঘুম রাতের ঘুমের জন্য ভীষণ ক্ষতিকারক। হালকা এক্সারসাইজ এর ফলে রাতের ঘুম খুব ভালো ও গভীর হয়।

৪) ঘুমাতে যাওয়ার সময় সমস্ত কাজ সেরে ফেলে নিজেকে রিল্যাক্স রাখা:

আপনি যদি প্রকৃত পক্ষে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায় খুঁজে থাকেন তাহলে এই উপায়টি আপনাকে অবশ্যই ফলো করতে হবে। যখন আপনি নিজের সমস্ত কর্ম সেরে ফেলে বিছানায় শুতে যাবেন তখন আপনার মাইন্ড টা ফ্রেশ থাকলে ঘুম তাড়াতাড়ি আসবে, তবে সেই সময় মোবাইল ফোন ঘাঁটলে সেক্ষেত্রে কিছু করার নেই। কিন্তু মোবাইল ফোন ঘাঁটার জায়গায় যদি নিজেকে রিল্যাক্স করেন তাহলে তাড়াতাড়ি ঘুম আসতে বাধ্য।

৫) সারাদিনে অনন্ত ৩০মিনিট সূর্যের আলোয় থাকা:

তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়গুলির মধ্যে এটি ভীষণ কার্যকরী উপায়। আপনি যদি সারাদিনে ৩০মিনিট সূর্যের আলোয় থাকেন, তখন আপনার ব্রেন দিন ও রাতের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারে। যার ফলে রাত হলেই ঘুম অটোমেটিক ঘুম চলে আসে। এই উপায়টি অত্যন্ত কার্যকরী।

৬) ৪৭৮ ট্রিক:

এই পোস্টটি ইনকম্পলিট যদি না এই উপায়টির কথা না বলা হয়। এই উপায়টি সর্বপ্রথম আমেরিকান লেখক ড: অ্যান্ড্রু ওয়েল ব্যাখ্যা করেছিলেন। এটি হল একটি বিশেষ প্রক্রিয়ায় শ্বাসকার্য চালানোর উপায়। এই উপায়টির দ্বারা মাত্র ২মিনিটের মধ্যে একটি মানুষ ঘুমিয়ে পড়তে পারে। পদ্ধতিটি হল ৪সেকেন্ড ধরে প্রশ্বাস নিয়ে, ৭সেকেন্ড ধরে তা আটকে রেখে এবং আগামী ৮সেকেন্ড ধরে তা নিজের মুখের মাধ্যমে আস্তে আস্তে ত্যাগ করা। এই উপায়টি বার-চারেক মনোযোগ দিয়ে করলেই একটি মানুষের মিনিট ২-এর মধ্যেই একটি গভীর ও ভালো ঘুম আসে। আমি নিজের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে বলছি তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায় গুলির মধ্যে এটি সবচেয়ে বেশি কার্যকরী। তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায় গুলির মধ্যে এটি সবচেয়ে বেশি ভালো এবং গভীর ঘুম দিতে পারে।

৭) ঘুম আসতে সাহায্য করে এমন কিছু খাবার খাওয়া:

তাড়াতাড়ি ঘুমানোর জন্য ঘুমাতে যাওয়ার আগে বা সারাদিনে কিছু জিনিস খাওয়া। সেক্ষেত্রে ঘুম খুব তাড়াতাড়ি আসে। জিনিসগুলি হল –
i) ওটস – ওটস যেমন ওজন কমাতে এবং অনেকক্ষণ পেট ভর্তি রাখতে সাহায্য করে, তেমনি ওটস খেলে ঘুমও তাড়াতাড়ি আসে। সারাদিনে এক বাটি ওটস আমাদের শরীরের পক্ষে স্বাস্থ্যকর।
ii) গরম দুধ – এমনিতেই দুধ আমাদের শরীরের পক্ষে খুব ভালো এবং উপকারী। রাতে ঘুমানোর আগে যদি একগ্লাস গরম দুধ খেয়ে ঘুমাতে যান তাহলে এটি তাড়াতাড়ি ঘুম আসতে সাহায্য করে। গরম দুধের মধ্যে এক চিমটি জায়ফল, এক চিমটি এলাচ এবং কয়েকটি কাজুবাদাম গুঁড়ো দিয়ে খেলে এতে যে কেবল দুধের সাধ বাড়বে তাই নয় তার সাথে দ্রুত ঘুমও ধরবে।

আরও পড়ুন – অতিরিক্ত হস্তমৈথূন্য জনিত সমস্যা সমাধান

আজকের পোস্টটি কেমন লাগলো তা নিচে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করতে ভুলবেন না। আর পোস্টটি বন্ধুদের সাথে অবশ্যই শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Top