You are here
Home > Don't Miss > বিনোদন > ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি | স্মৃতির সফরে ইরফান পুত্রেরা

ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি | স্মৃতির সফরে ইরফান পুত্রেরা

ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি

কালের গতানুগতিক চক্রাবর্তে সবাইকে যেতে হয় মহাদিগন্তের ওপারে। তেমনি বলিউড তথা হলিউডের অত্যন্ত পরিচিত ইরফান খান, আজ আর আমাদের মধ্যে নেই। আমাদের ছেড়ে আজ তিনিও পাড়ি দিয়েছেন অসীমের দিগন্তে, শুধু রয়ে গেছে অজস্র স্মৃতি। স্মৃতিমোন্থনে রয়েছে , ইরফানের ছবি, তাঁর অভিনয় কুশলী এবং ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি । যা ইরফান প্রেমীদের মনে চিরন্তন।

২০১৮ সাল থেকে দীর্ঘ ২ বছর মারণব্যাধি ক্যান্সারের সাথে লড়াকু ইরফান খান, মুম্বইয়ের ধীরুভাই কোকিলাবেন হাসপাতালে ২৯ শে এপ্রিল বুধবার সকালে প্রয়াত হলেন।
ইরফান খানের এই আকস্মিক জীবনাবসান, তাঁর পরিবারকে শোকাচ্ছন্নতো করেছেই। সেই সাথে আমাদের তথা সমস্ত ভক্তমন্ডলী এবং বলিউডকে করেছে শোকস্তব্ধ। পিতার স্মৃতির উদ্দেশ্যে ছেলে বাবিল খান ও আয়ান ইনস্ট্রাগ্রামে শেয়ার করেছেন ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি। যে ছবি গুলির সবটার সাথে আমরা ওয়াকিবহাল নই।

আসুন দেখা যাক ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি, অজস্র স্মৃতি এবং সেই সাথে তাঁর অভিনয় দক্ষতা ও অভিনয় জীবনের কিছু স্মৃতি-

ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি :

ইরফানের স্ত্রী সুতপা শিকদার নিজস্ব ফেসবুকে স্বামীর প্রয়াণের ২ দিনের মধ্যেই ইরফানের কিছু অদেখা ছবি শেয়ার করেছেন। যে ছবিতে একসাথে ইরফান খান ও সুতপা শিকদার এবং তাঁদের ভালোবাসার স্বাক্ষর রেখেছেন ।

নিজের স্ট্যাটাসে সুতপা শিকদার লিখেছেন –

আমি কিচ্ছু হারাই নি বরং আমি সবকিছু পেয়েছি

বড়ো ছেলে বাবিল ইনস্ট্রাগ্রামে কনকনে বরফ ঠান্ডা জলে ঝাঁপ দেওয়া ইরফানের ভিডিও শেয়ার করেছেন।

ভিডিও তে দেখা গেছে পাহাড়ী এলাকায় প্রচন্ড হারকাঁপানো ঠান্ডায় ডুব দিয়েছেন ইরফান। আসলে জীবনকে আনন্দে উপভোগ করতে চাইতেন। তাইতো ইরফানের মুখে শোনা গেছে –
“জীবনটা বড়ো নয় সুদীর্ঘ হওয়া উচিত”

ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামা – র বেশ কিছু পুরানো ছবি ও ইনস্ট্রাগ্রামে শেয়ার করেছেন বাবিল।

ইরফান খানের পানিপুরী খাওয়ার একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন বাবিল।

একটি রেস্তোরাঁয় বসে মজার সাথে ইরফানের ফুচকা বা পানিপুরী খাওয়ার দৃশ্য দেখতে পাওয়া গেলো। ভিডিও টি শেয়ার করে পিতার স্মৃতিমোন্থনে বাবিল
ক্যাপশনে লিখেছেন –
“যখন দীর্ঘ সময় তুমি ডায়েটে থাকো এবং শুটিং শেষ হওয়ার পর তুমি ফুচকার স্বাদ নিতে পারো”

এছাড়া, ছোট ছেলে আয়ান ও ইরফানের কিছু অদেখা ছবি শেয়ার করেছেন ইনস্ট্রাগ্রামে। আয়ান পিতার সাথে কাটানো শৈশবের এবং বর্তমান সমসাময়িক স্মৃতি শেয়ার করেছেন ইনস্ট্রাগ্রামে।

আয়ান পিতার স্মৃতি রোমন্থন করে ইনস্ট্রাগ্রামে লেখেন –
“এই পৃথিবীতে যারা ঘুরে বেড়ায় তাঁরা কথা রাখেন না, কিন্তু তাঁরাই আমাদের জীবনের আশীর্বাদ”

ইরফান খানের স্ত্রী ও তাঁর দুই ছেলের শেয়ার করা ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি সমস্ত ইরফান অনুরাগীদের ও স্মৃতিমোন্থন করে। সেই সাথে ইরফান খানের অকালপ্রয়াণে সমবেদনায় ভরে ওঠে মন। ইরফান ভক্তমন্ডলীর মনে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে ইরফান ।

সর্বোপরি, অপরিসীম অভিনয় এবং অতুলনীয় অভিনয় কুশলীতে ও ইরফান খান আমাদের কাছে চিরস্মরণীয়।

আসুন দেখে নেওয়া যাক ইরফান খানের অভিনয় ও অভিনয় জীবনের কিছু সাক্ষর

টিভি সিরিয়ালে অভিনয়ের মাধ্যমেই প্রথমে ক্যারিয়ার জীবনের সূচনা ইরফান খানের।
চাণৌক্য, বানেগী আপনে বাত, সারা জাহা হামারা, চন্দ্রকান্ত, আনুগুঞ্জ – এরকম একের পর এক টিভি সিরিয়ালে অভিনয় করেন তিনি।

বলিউডে তাঁর পদার্পন ডিরেক্টর মীরা নায়ারের সালাম বম্বে চলচ্চিত্রে অভিনয় দিয়ে। এরপর অসাধারণ অভিনয় দক্ষতায় একের পর এক চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে থাকেন। প্রথমদিকে বেশি সাফল্য না আসলে ও বেশ কিছু চলচ্চিত্রে অতুলনীয় অভিনয় দক্ষতায় নিজের জায়গা করে নিয়েছেন। যেমন –

  • ২০০৭ সালে ‘লাইফ ইন আ মেট্রো’-তে ফিল্ম ফেয়ার পুরস্কার পান ।
  • ২০১১ সালে ‘পান সিং তোমার’-তে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও ফিল্ম ফেয়ার পুরস্কার প্রাপ্ত হন।
  • ২০১১ সালে ভারত সরকার দ্বারা পদ্মশ্রী পদকে ভূষিত হন তিনি।
  • ২০১৫ সালে ‘পিকু’- তে সেরা অভিনেতার শিরোপা পান তিনি।

ইরফান খান বলিউডের পাশাপাশি হলিউডে ও তার অসাধারণ অভিনয় কুশলীর পরিচয় দিয়েছেন। যেমন-

  • ব্রিটিশ ফিল্ম ‘দ্য ওয়ারিয়র’-এ বাফটা অ্যাওয়ার্ড তাঁকে হলিউডে জনপ্রিয় করে তোলে।
  • ‘স্লামডগ মিলিয়নিয়র’-এ তাঁর অকল্পনীয় অভিনয় হলিউডের জনপ্রিয় ভারতীয় অভিনেতা হিসেবে পরিচিত করে।
  • ২০১৩ সালে ‘দা লাঞ্চ বক্স’-এ অভিনয়ের জন্য এশিয়ান ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডে সেরা অভিনেতার মর্যাদা পান তিনি।

এছাড়া ও বহু আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র –

নিউইয়র্ক, আই লাভ ইউ, লাইফ অব পাই, দি অ্যামেজিং স্পাইডারম্যান – ২০১২, জুরাসিক ওয়ার্ল্ড – ২০১৫, ইনফার্নো – ২০১৬
এ সমস্ত চলচ্চিত্রে অভাবনীয় ও অতুলনীয় অভিনয় তাঁকে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছে দিয়েছে।

বলাবাহুল্য, ২০১৭ সাল পর্যন্ত তাঁর এক্সিলেন্ট পারফরম্যান্স বক্সঅফিসকে প্রচুর বিলিয়ন আয় এবং খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে দেয়।

আরও পড়ুন – করোনা ভাইরাস বিশ্ব মহামারী ২০২০ | Coronavirus: Pandemic Of 2020

২০১৮ সালে নিউরো এন্ডোক্রিন টিউমারে আক্রান্ত হলেও জীবনের যুদ্ধে ও থেমে থাকেননি শক্তিশালী অভিনেতা ইরফান খান। লন্ডন থেকে চিকিৎসা করে সুস্থ হয়ে আবার কামব্যাক করেন ‘আংরেজী মিডিয়াম’- এ। ‘আংরেজী মিডিয়াম’- বক্সঅফিসে বেশিদিন প্রদর্শিত হতে পারলো না শুরু হয়ে গেল সারাদেশ তথা বিশ্বব্যাপী লকডাউনের পালা। আর এই বিশ্ব অচলায়তনের মধ্যে আমাদের ছেড়ে চিরবিদায় নিলেন ইরফান খান ২০২০ সালে ২৯ শে এপ্রিল।

অভিনেতার অকালপ্রয়াণে প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সমস্ত ইরফান অনুরাগীরা এমনকি গোটা বলিউড ও সমবেদনা জানিয়েছেন তাঁর পরিবারকে।
সর্বশেষে, সমস্ত দেশবাসীর পক্ষ থেকে এই লড়াকু বীরযোদ্ধার আত্মার শান্তি কামনা এবং প্রণাম।

বিভিন্ন সংবাদ চ্যানেল, প্রতিবেদন এবং ইন্টারনেট তথ্যসূত্র সংগৃহীত ইরফান খানের কিছু অদেখা ছবি সংযোজিত হল। সেই সাথে এই চলচ্চিত্র অভিনেতার অভিনয় প্রতিভা ও উন্মোচিত হল সিনেপ্রেমীদের কাছে।

Leave a Reply

Top