You are here
Home > Don't Miss > ভাইরাল > লকডাউনের মেয়াদ বেড়ে ৪র্থ দফায় লকডাউন জারি : সমালোচনা তুঙ্গে

লকডাউনের মেয়াদ বেড়ে ৪র্থ দফায় লকডাউন জারি : সমালোচনা তুঙ্গে

৪র্থ দফায় লকডাউন

নভেল করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে বিপুল বিশ্ব জনবাসী লকডাউনে আবদ্ধ। লড়াইটা ক্রমশ জটিল থেকে জটিলতর হয়ে উঠছে। সংক্রমণ কমছে না, আতঙ্কিত আপামোর বিশ্বজনবাসী। শুরু হতে চলেছে ৪র্থ দফায় লকডাউন!

বেশিরভাগ দেশের পরিস্থিতি এখন ও কোভিড-১৯ এর প্রকোপে চরম পর্যায়ে। কোথাও সাধারণ জনজীবনের স্বার্থে লকডাউন কিছুটা শিথিল করা হলেও লকডাউন পুরোপুরি তুলে নেওয়া হচ্ছে না। তাই লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী ১৭মে – র ৩য় দফায় লকডাউন শেষ হওয়ার পর শুরু হতে চলেছে ৪র্থ দফায় লকডাউন।

আজকের আলোচনায় দেখে নিন :

  • লকডাউন
  • লকডাউনের ১-৩ দফা
  • ৪র্থ দফায় লকডাউন
  • ৪র্থ দফায় লকডাউনে কি কি ছাড়

আসুন দেখে নেওয়া যাক :

লকডাউন :

বিশ্বব্যাপী মহামারী সৃষ্টিকারী নোবেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে শুরু হয় লকডাউন। দেশবাসী সবাইকে গৃহবন্দি থাকা এবং সোশ্যাল ডিসট্যান্স মেনে চলার কথা ঘোষণা করা হয়। নিজেদের সুরক্ষিত রাখা এবং করোনা ভাইরাসের নির্মূলীকরণই লকডাউনের মূল উদ্দেশ্য।

লকডাউনের ১-৩ দফা:

গোটা বিশ্ব বাসীর স্বার্থে সরকারিভাবে ঘোষিত হল লকডাউন যথা –

প্রথম দফা – ২৫ শে মার্চ থেকে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত, ২১ দিনের

দ্বিতীয় দফা – ১৪ এপ্রিল থেকে ৩মে পর্যন্ত, ১৯ দিনের

তৃতীয় দফা – ৪মে থেকে ১৭ মে পর্যন্ত, ১৪ দিনের।

৪র্থ দফায় লকডাউন:

আগামী ১৭ মে তৃতীয় লকডাউন দফা শেষ হওয়ার কথা। ইতিমধ্যেই গ্রীন জোন, অরেঞ্জ জোন চিহ্নিত জায়গাগুলিতে লকডাউন কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। কিন্তু রেড জোনগুলিতে শিথিল করা যাবে না। রেড জোনগুলিতে আরও কঠোরভাবে লকডাউন জারি হবে। যেহেতু চীনকে ছাপিয়ে গিয়েছে ভারতের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে করোনার বর্তমান পরিস্থিতি পর্যালোচনায় ভিডিও কনফারেন্স করেন। তিনি ঘোষণা করেন ৪র্থ দফায় লকডাউন শুরু হবে। আর এই ৪র্থ দফায় লকডাউন চলবে ৩১শে মে পর্যন্ত।

৪র্থ দফায় লকডাউনে কি কি ছাড়:

করোনা ভাইরাসের প্রতিরোধে দেশের ভয়ানক পরিস্থিতি সামাল দিতে শুরু হতে চলেছে ৪র্থ দফায় লকডাউন।যেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন –

  • ৪র্থ দফায় লকডাউনে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হবে।
  • গ্রীন জোন, অরেঞ্জ জোন গুলিতে কিছু পরিসেবা চালু করা হবে।
  • দেশের অর্থনীতি ব্যালেন্স করতে কিছু ক্ষেত্রে
    ছাড় দেওয়া হবে তবে তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন নি।
  • সূত্রের খবর – সোশ্যাল ডিসট্যান্স বজায় রেখে রেস্তরাঁ, স্কুল কলেজ, শপিং মল সহ প্রায় সবই খোলা হতে পারে। স্বাভাবিক করা যেতে পারে রাজ্য গুলিতে বিমান চলাচল।
  • রেড জোনগুলিতে লকডাউন চালু থাকবে।

আরও পড়ুন – এই ১৫টি খাবার খেলে দূরে থাকবে করোনা

উপরোক্ত আলোচনা শুরু হতে চলেছে ৪র্থ দফায় লকডাউন। এটি বিভিন্ন নিউজ চ্যানেল এবং সংবাদ মাধ্যম তথ্যসূত্র সংগৃহীত। আগামী ১৭মে – র পর আরও বিস্তারিত জানা যাবে। করোনা ভাইরাসের আপডেটেড নিউজ এবং লকডাউনের আরও তথ্য পেতে আমাদের পেজটিতে চোখ রাখুন। এ বিষয়ে কোনও কমেন্ট করতে পেজটি লাইক করুন।

Leave a Reply

Top